অভ্র সফটওয়্যারের বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ – রিয়েল টাইম নিউজ নেটওয়ার্ক

rtnnসম্প্রতি ‘দৈনিক জনকন্ঠে’ বিজয় সফ্টওয়্যারের প্রণেতা মোস্তফা জব্বার অভ্র সফ্টওয়্যারটিকে পাইরেটেড সফ্টওয়্যার হিসেবে উল্লেখ করে অভিযোগ করেন যে অভ্র সফ্‌টওয়্যারের প্রণেতা জনাব মেহেদী হাসান বিজয় সফ্টওয়্যার হ্যাক করে এটি তৈরি করেছেন। অভ্র সফ্টওয়্যারের ব্যবহার নিঃসন্দেহে দিনে দিনে বেড়ে যাচ্ছে সারা বিশ্বে। ইউনিকোড ভিত্তিক এই অভ্র সফ্টওয়্যারকে নিয়ে তেমন কিছু নতুন করে বলার অবকাশ রাখেনা। ইউনিকোড ভিত্তিক বাংলা কম্পিউটিং-এর যুগে অভ্র নতুন সম্ভাবনার দুয়ার উন্মোচন করেছে। বিজয় সফ্টওয়্যারটি বের হবার পর বাংলা লেখালেখিতে নতুন মাত্রা দিয়েছিল এবং এখনো প্রকাশনা মাধ্যমে বহুল ব্যবহৃত হয়ে আসছে কিন্তু দিনে দিনে বিজয়ের জনপ্রিয়তা পড়তির দিকে।
অভ্র সফ্‌টওয়্যার ভীষণভাবে ইউজার ফ্রেন্ডলি হবার কারণেই এর ব্যবহারকারীদের সংখ্যা বেড়েই যাচ্ছে দিনে দিনে। ফনেটিক বাংলা প্রবর্তণের কল্যাণে বাংলার প্রচার আরো বেড়েছে নতুন প্রজন্মের কাছে এবং তারা উৎসাহিত হচ্ছে অভ্র ব্যবহার করে বাংলায় লেখা কম্পিউটারে। বিজয়ের প্রসার কমে যাবার কারণে মোস্তফা জব্বার স্বাভাবিকভাবেই অর্থনৈতিক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন এবং আগামীতেও হবার সম্ভাবনা প্রচুরভাবে রয়েছে।অভ্র’র প্রণেতা জনাব মেহেদী হাসান তার সফ্টওয়্যারটিকে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে বিলিয়ে যাচ্ছেন সাধারণ মানুষের মধ্যে, সারা বিশ্বে।

লিংকঃ এখানে

5 টি মন্তব্য

  1. আর্কাইভ এডমিন said,

    হাজী মহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যা থেকে মেহেদি হাসান লিখেছেন,
    আসলে অনার অনেক বয়স হয়ে গেছে তাই অনার একটু বুদ্ধি কমে গেছে। আসলে অভ্র ব্যবহার করা এতই সহজ যে ভুলে কেউ আর বিজয় ব্যবহার করতে চাইনা কিছু বাতিক্রম ছাড়া।

  2. আর্কাইভ এডমিন said,

    নিউ ইয়র্ক, ইউএসএ থেকে মিনহাজ আহমদ লিখেছেন,
    আমি দীর্ঘদিন যাবত কমপিউটারে বাংলা ব্যবহার করে আসছি। শুরু করেছিলাম প্রশিকা দিয়ে, মধ্যে বিজয় এবং এখন প্রয়োজন অনুযায়ী বিজয় ও অভ্র দুটোই ব্যবহার করছি। ডেস্কটপ পাবলিকেন্স-এর জন্য বিজয় অনেক ক্ষেত্রে বিজয় ভালো, তবে ইমেইল ও ওয়েব পাবলিকেশন্স-এর জন্য অভ্র ভালো। আমি মনে করি অভ্র প্রযুক্তিগত উন্নতির ধারায় প্রাপ্ত জ্ঞান-বিজ্ঞান-উপকরণ-এর উপর নির্ভর করে অগ্রসর হচ্ছে। এখানে পাইরেসির অভিযোগ অবান্তর। আমি আরও মনে করি যে, জ্ঞান-বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির অগ্রগতির ধারা অব্যাহত রাখতে ও সকল মানুষের জন্য প্রযুক্তি ব্যবহারের অধিকার নিশ্চিত করতে ব্যবসায়িক দৃষ্টিভঙ্গী পরিহার করা উচিত। প্রযুক্তির উন্নয়নের গবেষণার ক্ষেত্রে সরকার ও এনজিওসমূহের উচিত ব্যবসায়িক দৃষ্টিভঙ্গীবিহীন গবেষক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে আর্থিক সহায়তা দেয়া।

  3. আর্কাইভ এডমিন said,

    মাদ্রিদ, স্পেন। থেকে জাকির বেপারী লিখেছেন,
    আসলে মোস্তফা জব্বারের মাথা খারাপ হয়ে গেছে। ব্যবসা ভাল যাচ্ছে না এখন আর কেউ বিজয় কিনে না। আর অন্যদিকে মেহেদী হাসান অভ্র সফটওয়ারটি সবগুলো কিবোর্ড ও সহজ ইন্টারফেজ দিয়ে মানুষের মাঝে ফ্রি বিতরন করে মন জয় করে নিচ্ছে। আর বর্তমানে ইউনিকোডের জমানায় মোস্তফা জব্বারের বিজয় অচল হবারই কথা।

  4. আর্কাইভ এডমিন said,

    USA থেকে Golam Ahmed লিখেছেন,
    I request to make the Bijoy software more userfriendly. So that people can come back to Bijoy. This is a competetive market. People will accept more userfriendly and cheaper things. Thanks

  5. আর্কাইভ এডমিন said,

    ধানমন্ডি ঢাক থেকে স র আখতার লিখেছেন,
    সব টুকু সমর্থন রইলো।

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: